Breaking News
Home / খেলার খবর / নুনেজ লাল কার্ড দেখায় ক্রিস্টাল প্যালেস ডিফেন্ডারকে হত্যার হুমকি

নুনেজ লাল কার্ড দেখায় ক্রিস্টাল প্যালেস ডিফেন্ডারকে হত্যার হুমকি

কমিউনিটি শিল্ড জয় দিয়ে নতুন মৌসুমের শুরুটা করলেও প্রিমিয়ার লিগের শুরুটা ভালো হয়নি লিভারপুলের। গতবার ১ পয়েন্ট ব্যবধানে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে শিরোপা খোয়ানো দলটা এবার প্রথম দুই ম্যাচেই করেছে ড্র। ফুলহামের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করার পর, সোমবার (১৫ আগস্ট) ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষেও ড্র করেছে অলরেডরা।

এই ম্যাচেই প্রতিপক্ষের ইওয়াখিম অ্যান্ডারসনকে ঢুস মেরে লাল কার্ড দেখেছেন লিভারপুলের ডারউইন নুনেজ। অবশ্য আনাসনই প্রথমে উসকে দিয়েছিলেন এই উরুগুইয়ানকে। যার পরিপ্রেক্ষিতে লিভারপুল সমর্থকরা তাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।সোমবার (১৫ আগস্ট) অ্যানফিল্ডে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে লিভারপুল।

ম্যাচের ৫৬ মিনিটে ঢুস মেরে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন লিভারপুল স্ট্রাইকার ডারউইন নুনেজ। নুনেজের লাল কার্ড পাওয়ার পেছনে প্ররোচনা আছে প্যালেসের ডিফেন্ডার ইওয়াখিম অ্যান্ডারসনের। ডেনমার্কের এই ডিফেন্ডার প্রথমে ধাক্কা মেরে নুনেজকে খেপিয়ে দেন। মেজাজ নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে তাকে ঢুস মেরে বসেন লিভারপুল স্ট্রাইকার।

অ্যান্ডারসনের ওপর খেপেছেন লিভারপুলের সমর্থকরা। এই স্ট্রাইকারের লাল কার্ডের হোতা হিসেবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া পাচ্ছেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে অনেক অপমানজনক কথা তো দেখছেনই, এবার পেয়েছেন প্রাণনাশের হুমকি। এমন কিছু বার্তার সঙ্গে লিভারপুল সমর্থকদের থেকে পেয়েছেন হত্যার হুমকি।

যার কিছু স্ক্রিনশট প্রকাশ করে ইনস্টাগ্রাম ও প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। তিনি বলেন, গত রাতে প্রায় তিন-চারশ বার্তা পেয়েছি। বুঝতি পারছি আপনারা একটি দলকে সমর্থন করেন, কিন্তু সম্মানবোধ তো থাকা উচিত আর অনলাইনে এমন কাজ বন্ধ করুন। আশা করি, ইনস্টাগ্রাম ও প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কিছু করবে।

উল্লেখ্য নতুন মৌসুমের প্রথম দুই ম্যাচেই পয়েন্ট হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ১২তম স্থানে আছে লিভারপুল।

Check Also

পুরো বিশ্বকে চমকিয়ে সবচেয়ে ভয়ংকর স্লোয়ার ফাস্ট বোলার এক টাইগার পেসার

২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন মুস্তাফিজুর রহমান। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.